রাজিয়া বেগম ছাত্রীনিবাস

হোস্টেল সুপার:

সহকারী অধ্যাপক
মনোবিজ্ঞান বিভাগ

সহকারী হোস্টেল সুপার:
1.
প্রভাষক
প্রাণিবিদ্যা বিভাগ

ফোন :
ফ্যাক্স :
ইমেইল : info@eden.com
মোট রুম : ৫৬
মোট আসন :
হোস্টেলে শেষ ঢুকার সময় : ১১:০০:০০ অপরাহ্ন
হোস্টেল থেকে বের হওয়ার সময় : ১১:০০:০০ অপরাহ্ন

ইডেন মহিলা কলেজ বাংলাদেশের একটি ঐতিহ্যবাহী মহিলাদের সর্ববৃহৎ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রতি বছর প্রতিষ্ঠানে শিক্ষা লাভের স্বপ্ন নিয়ে দেশের বিভিন্ন অঞ্চল হতে বিভিন্ন স্তরের শিক্ষার্থীরা ছুটে আসে ২৩টি বিভাগে পঁয়ত্রিশ হাজারেরও বেশী শিক্ষার্থী পড়াশুনা করে প্রতিষ্ঠানে বিপুল সংখ্যক ছাত্রীর আবাসন সমস্যা সমাধানকল্পে কলেজে রয়েছে ছয়টি ছাত্রী নিবাস যার মধ্যো একটি রাজিয়া বেগম ছাত্রী নিবাস ছাত্রী নিবাসটি প্রতিষ্টিত হয় ১৯৯৯ সালে কলেজের প্রাক্তন অধ্যক্ষ রসায়ন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান মরহুমা রাজিয়া বেগমের নামানুসারে হোস্টেলটির নাম করন করা হয় ৫ম তলা বিশিষ্ট হোস্টেলটিবিদুইটি ব্লকে  বিভক্ত ছাত্রীকক্ষ ৫৬টি তাছাড়া এখানে রান্নঘার, খাবার ঘর, অফিস কক্ষ, মেট্রেনের কক্ষ, অফিস সহকারী শয়ন কক্ষ, টিভি/বিনোদন কক্ষ, নামাজ কক্ষ রয়েছে ২০১০ সালের মার্চ মাস থেকে আমি হোস্টেলে দায়িত্ব নিষ্ঠার সাথে পালন করে আসছি আমাকে সার্বিক সহযোগীতা করছেন অফিস সহকারী শারমিন আক্তার রিপা এছাড়া তিনজন নৈশ দিবা প্রহরী, চারজন সুইপার, একজন মািিল, একজন বৈদ্যুতিক মিস্ত্রি একজন গভীর নলকূপ অপারেটর সার্বক্ষণিক দায়িত্ব পালন করছেন এখানে রয়েছে একটি ক্যাফেটেরিয়া এতে ছাত্রীরা নিজ নিজ সামর্থ্য অনুযায়ী প্রতিবেলায় প্রয়োজনমত খাবার কিনে খেতে পারবে অর্থাৎ সে চাইলে যেমন মাংস খেতে পারবে আবার ইচ্ছা করলে ভর্তা/ডাল দিয়েও খাবার সেরে নিতে পারবে সিষ্টেম মেয়েদের জন্য অপেক্ষাকৃত ভাল এভাবে চলচে হোস্টেলের খাবার ব্যবস্থা হোস্টেলে ক্যাফেটেরিয়া সিষ্টেমে প্রচলিত  খাবারের মান খুব ভাল সেটা বলব না তবে আমরা চেষ্টা করি কিভাবে আরেকটু মানসম্মত খাবার ছাত্রীদের সামনে আনা যায়

অধ্যক্ষ মহোদয় কলেজের কিছু অভিজ্ঞ চৌকস শিক্ষকদের সমন্বয়ে একটি মনটরিং সেল তৈরি করেছেন যারা হোস্টেলের জন্য অক্লান্ত পরিশ্রম করেন প্রয়োজনবোধে আমাদেরকে সুচিন্তিত মতামত নির্দেশনা দিয়ে থাকেন কলেজ হোস্টেলের শৃঙখলা রক্ষার সুবিধার্থে অধ্যক্ষ মহোদয় সকল হোস্টেল কলেজের গুরুত্বপূর্ণ স্থানগুলোতে সিসি ক্যামেরা স্থাপন করেছেন এতে তিনি নিজ অফিস কক্ষে বসেই কলেজের সার্বিক পরিস্থিতি তদারকি করতে পারেন গত একবছর বৈদ্যুতিক লাইন সংস্কারসহ সকল পর্যায়ে কমবেশী প্রচুর সংস্কার হয়েছে যা করেছেন শিক্ষা প্রকৈাশল বিভাগ সমস্তই সম্ভব হয়েছে বর্তমান সুযোগ্য অধ্যক্ষ প্রফেসর . শামসুন নাহার আপার অক্লান্ত পরিশ্রমের কারণে আপার এই উন্নয়ন কর্মকান্ডকে আরও বেগমান করতে যিনি সর্বক্ষণ ছায়ার মত পাশে থেকে সহায়তা করে যাচ্ছেন তিনি কলেজের উপাধ্যক্ষ প্রফেসর তহমিনা আক্তার

হোস্টেলের পরিসর ছোট হলেও মৌসুমি ফলের বাগান রয়েছে ফল পাকলে হল প্রশাসনের তত্ত্ববধানে ফল সংগ্রহ করে ছাত্রীদের মধ্যে বণ্টন করে দেয়া হয় আরো রয়েছে ১০,০০০ লিটার ধারণ ক্ষমতার বিশুদ্ধ খাবার পানির গাজী ট্যাংক এই হলে অবস্থিত গভীর  নলকূপের পানি এই ট্যাংকিতে সংরক্ষিত হয় পরবর্তীতে এটি পাইপের মাধ্যমে অন্যান্য সকল হোস্টেল সহ  কলেজের খাবার পানির চাহিদা মেটায়

আমাদের হোস্টেলগুলোতে বসবাসকারী মেয়েদের পরীক্ষার ফলাফল বরাবরই মেধাতালিকায় সর্বোচ্চ পর্যায়ে থাকে প্রতি বছর বি.সি.এস. পরীক্ষায়, ব্যাংকে এবং অন্যান্য প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষাগুলোতে মেয়েরা কৃতিত্ত্বের সাথে উত্তীর্ণ হয় এবং বাংলাদেশের সর্বোচ্চ জায়গায় চাকুরিতে  নিয়োগ পেয়ে পরিবার এবং দেশের জন্য কাজ করার সুযোগ পায় এটা আমাদের ইডেন পরিবারের জন্য গর্বের বিষয়